বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার। (কম্পিউটার ও মোবাইল সফটওয়্যার)

পোষ্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

5/5 - (1 vote)

বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার বিয়ে প্রায় সকলের জীবনের সবচেয়ে স্মরনীয় একটি মুহুর্ত। বিয়ের পরবর্তী জীবনে ও এই স্মৃতি কে ধরে রাখার জন্য অনেকেই বিয়ের সম্পূর্ণ ভিডিও ধারণ করেন। অনেকেই ফটোগ্রাফার বা ভিডিও গ্রাফার এর মাধ্যমে ভিডিও ধারণ ও এডিটিং সম্পন্ন করেন।

কিন্তু অনেকে চাইলেও অনেক টাকা দিয়ে একজন ভিডিও গ্রাফার হায়ার করতে পারেন না। নিজেরাই ভিডিও ধারণ করেন ও এডিট করতে চান। আজকের আর্টিকেলে আমরা জানাবো কিভাবে আপনি বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার সম্পর্কে। বর্তমানে বিয়ের ভিডিও এডিটিং এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। আপনি চাইলে অন্যদের বিয়ের ভিডিও এডিট করে দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার

বিয়ের ভিডিও গুলো অন্যসব ভিডিও এর চেয়ে অনেক টা আলাদা থাকে। এখানে স্টোরি আকারে বিয়ের সম্পূর্ণ দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়। তাই প্রয়োজন পরে ভালো মানের এডিটিং দক্ষতা ও সফটওয়্যার এর।

📌 আরো পড়ুন 👇

আর্টিকেলের শুরুতেই আমরা পিসি বা ল্যাপটপের জন্য সেরা ২০ টি সফটওয়্যার সম্পর্কে জানাবো। তবে যারা শুধু মাত্র মোবাইলে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার খুজছেন তারা একদম নিচের দিকের অংশ পড়ে নিতে পারেন। নিচে দেখে নিন সেরা ১০ টি বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার

  1. Adobe Premiere Pro
  2. Davinci Resolve
  3. Sony Vegas pro
  4. CyberLink PowerDirector
  5. Wondershare Filmora
  6. HitFilm Pro
  7. Adobe After Effects
  8. Lightworks
  9. Animaker
  10. iMovie

চলুন এবার কম্পিউটারের জন্য বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাক –

১। Adobe Premiere Pro

বিয়ের ভিডিও থেকে শুরু করে যে কোনো ধরণের প্রফেসনাল মানের ভিডিও এডিট করার জন্য ব্যবহার করতে পারেন এডোবি প্রিমিয়ার প্রো সফটওয়্যার টি। এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করার জন্য আপনার ভালো মানের একটি পিসি থাকতে হবে। ভালো মানের পিসি ছাড়া আপনি ভিডিও এডিট করতে পারবেন না। এই সফটওয়্যারে প্রচুর পরিমানে ইফেক্ট ও টুলস আছে। যদি প্রফেসনাল মানের ভিডিও এডিট করতে চান তাহলে ব্যবহার করতে পারেন।

২। Davinci Resolve

ভালো মানের বিয়ের ভিডিও এডিট করার জন্য আপনি চাইলে এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারেন। এটা আপনি উইন্ডোজ ও ম্যাক দুটোতেই ব্যবহার করতে পারবেন।  এই সফটওয়্যার প্রচুর পরিমানে টুলস আছে যা দিয়ে আপনি কালার গ্রেডিং, ইফেক্টস, ভিডিও রেন্ডারিং ইত্যাদি খুব ভালো ভাবে করতে পারবেন।

৩। Sony Vegas pro

ভিডিও এডিটিং করার জন্য প্রফেসনাল একটি সফটওয়্যার এটি। এটা একটি নন-লাইনার ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার। ১৯৯৯ সালে উন্মুক্ত করা সফটওয়্যার টি এডিটর দের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। বিয়ের ভিডিও এডিট করার জন্য এটা আপনারা ব্যবহার করতে পারেন।

৪। CyberLink PowerDirector

বিয়ের ভিডিও এডিট করার জন্য আরো একটি জনপ্রিয় সফটওয়্যার হলো CyberLink PowerDirector. এটার ইন্টারফেস একদম সহজ সাবলীল হওয়ায় যে কেউ চাইলে সহজেই ব্যবহার করতে পারে। সাধারণ মানের পিসি তে ও খুব ভালো ভাবে ব্যবহার করা যায়।

৫। Wondershare Filmora

যে কোনো ধরণের ভিডিও তৈরি করার জন্য বর্তমানে জনপ্রিয় একটি সফটওয়্যার এটি। এই সফটওয়্যার এর অনেক গুলো ভার্সন আছে। যদি আপনার পিসি লো কনফিগারেসন এর হয়ে থাকে তাহলে পূর্বের ভার্সন গুলো খুব সহজে ব্যবহার করতে পারবেন।

৬। HitFilm Pro

বিয়ের ভিডিও এডিট করার জন্য অসাধারণ একটি সফটওয়্যার। এখানে আপনি সহজেই কালার গ্রেডিং ও বিভিন্ন ইফেক্ট এর মাধ্যমে ভিডিও কে আরো বেশি সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলতে পারবেন।

৭। Adobe After Effects

অনেক সময় বিয়ের ভিডিও গুলোতে সুন্দর ভাবে টেক্সট ফুটিয়ে তোলার জন্য এনিমেসন এর প্রয়োজন হয়। এটি একটি এডভান্স লেভেল এর সফটওয়্যার। ভিডিও এডিট করার জন্য ব্যবহার করতে পারেন। আবার বিভিন্ন ধরণের এনিমেশন তৈরি করতে ব্যবহার করতে পারবেন এই সফটওয়্যার টি।

৮। Lightworks

বিয়ের ভিডিও এডিটিং করার জন্য অসাধারণ একটি সফটওয়্যার এটি। অনেক ফিচার সম্পন্ন এই সফটওয়্যার দিয়ে আপনি রিয়েল টাইম ইফেক্ট ব্যবহার করতে পারবেন। মাল্টি ক্যামেরা এঙ্গেলে এডিট করার সুবিধা পাশাপাশি সেকেন্ড মনিটরে নিয়ে কাজ সহজে করা যায়।

৯। Animaker

এটি একটি ক্লাউড ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার। এটার মাধ্যমে আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে ভিডিও তে এনিমেসন যুক্ত করতে পারবেন। ক্লাউড এর সাথে যুক্ত থাকার কারণে ইন্সটল করার কোনো দরকার হবে না। বিভিন্ন ধরণের এনিমেসন ক্যারেক্টার এই সফটওয়্যার এর টুলস এর মাধ্যমে খুব সহজে তৈরি করতে পারবেন।

১০। iMovie

এই ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার টি শুধু মাত্র ম্যাক ইউজার রা ব্যাবহার করতে পারবেন। এটি এপল এর একটি প্রোডাক্ট। ভালো মানের ভিডিও তৈরি করার জন্য বেশ জনপ্রিয়। যে কোনো ফরম্যাটের ভিডিও সহজেই ইমপোর্ট করে এডিটিং কাজ করতে পারবেন। এ ছাড়াও ফিচার হিসেবে অনেক ধরণের ইফেক্ট তো আছেই।

উপরের দেয়া সব গুলো সফটওয়্যার পেইড। আপনি ফ্রি ভার্সন ব্যবহার করতে পারেন তবে সে ক্ষেত্রে ওয়াটার মার্ক থাকবে। প্রফেসনাল ভাবে এডিট করার জন্য আপনাকে এগুলোর সাবস্ক্রিপসন ক্রয় করে ব্যবহার করতে হবে।

মোবাইলে বিয়ের ভিডিও এডিট করার সফটওয়্যার

অনেকের কাছেই ভালো একটি পিসি নেই কিন্তু তাই বলে কি ভিডিও এডিটিং থেমে থাকবে? বর্তমানে মোবাইলেও বেশ ভালো মানের সফটওয়্যার পাওয়া যায় যা দিয়ে যে কোনো ধরণের ভিডিও এডিট করা যায়। নিচে মোবাইলে ভিডিও এডিট করার সেরা ০৫ টি সফটওয়্যার এর তালিকা দিলাম

  • Kinemaster
  • Capcut
  • Inshot
  • Alight Motion
  • Vn

চলুন এবার মোবাইলে বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাক –

Kinemaster

মোবাইলে ভিডিও এডিট করার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি সফটওয়্যার হলো কাইন মাস্টার। এটা অনেক আগের একটি সফটওয়্যার। এটা দিয়ে আপনার ইফেক্টস, কি ফ্রেম সহ প্রায় সবধরণের কাজ করতে পারবেন। আপনি চাইলে বিয়ের ভিডিও এডিট করতে পারবেন।

Capcut

এ সময়ের জনপ্রিয় ভিডিও এডিট এর জন্য ক্যাপ কাট সেরা একটি সফটওয়্যার। বিয়ের ভিডিও এডিট করতে পারবেন খুব সহজেই। এটা একদম ফ্রি তে ব্যবহার করতে পারবেন।

Inshot

অনেকটা ক্যাপ কাট এর মত ইন্টারফেস নিয়ে আরো একটি সেরা সফটওয়্যার হলো ইন শট। আপনারা মোবাইলে ভিডিও এডিট করতে চাইলে এটা ব্যবহার করতে পারেন।

Alight Motion

মোবাইলে ভিডিও তে কালার গ্রেডিং ও মোশন ব্যবহার করা অনেক টা কঠিন। তবে আপনি এলাইট মোশন ব্যবহার করে সহজেই ভিডিও এর কালার কারেকসন ও বিভিন্ন ধরণের মোশন গ্রাফিক্স যুক্ত করতে পারবেন।

VN

মোবাইলে ভিডিও এডিট করার আরো একটি সেরা সফটওয়্যার এটি। সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা যায় Slow motion ভিডিও তৈরি করতে। একদম স্মুথ স্লো মোশন ভিডিও এডিট করার জন্য এটা ব্যবহার করতে পারেন।

📌 আরো পড়ুন 👇

বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার সম্পর্কে আমাদের মতামত 

বিয়ের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার আর্টিকেলে আমরা পিসি ও মোবাইলের জন্য বেশ কয়েকটি সফটওয়্যার এর তালিকা দিলাম। প্রতিটি সফটওয়্যার এর আলাদা কিছু ফিচার থাকে। আলাদা ফিচার গুলো অন্য সব গুলোতে পাওয়া যায় না। তাই আপনার এডিটিং এর প্রয়োজন অনুযায়ী ফিচার দেখে ব্যবহার করতে পারেন।


পোষ্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Comment